ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন শুরু, লক্ষ্মীপুর জেলায় ভিটামিন-‘এ’ পাবে প্রায় ৩ লাখ শিশু

স্বাস্থ্য

নাজমুল হোসেন, নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুর জেলায় জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করা হয়। 

লক্ষ্মীপুর জেলায় মোট ২ লাখ ৯৯ হাজার ৯’শ ৯৩ জন শিশু এই কর্মসূচির আওতায় আনার লক্ষ্যমাত্রার নির্ধারণ করা হয়েছে।

আজ শনিবার (১ জুন) সকালে শহরের রেহান উদ্দিন সড়কের পাশে জনতার ঘরে এই ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করেন লক্ষ্মীপুর পৌর সভার মেয়রের পক্ষে তার সহধর্মিণী শায়লা শারমিন জুমা।

এ সময় পৌরসভার স্যানেটারি ইসপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক মুহাম্মদ আবদুল্লা হিল হাকিম সুমন, নন্দন মুক্ত রোভার স্কাউট সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদসহ যুব রেড ক্রিসেন্ট সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

শায়লা শারমিন জুমা ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন সফল করতে সবাইকে আহ্বান জানিয়ে বলেন, লক্ষ্মীপুর পৌর এলাকার ১৫টি ওয়ার্ডে ৪৫টি কেন্দ্রে ৬ মাস থেকে ৫ বছর বয়সী সব শিশুকে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস খাওয়ানো হবে।

লক্ষ্মীপুর পৌরসভার স্যানেটারি ইসপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক মুহাম্মদ আবদুল্লা হিল হাকিম সুমন বলেন, লক্ষ্মীপুর পৌর এলাকায় ২টি ভ্রাম্যমাণ কেন্দ্রসহ ৪৫টি কেন্দ্রে ৬-১১ মাস বয়সী ২ হাজার ৩’শ ১৪ এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী ১৫ হাজার ১২ জন জাতীয় ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. নাহিদ রায়হান জানান, লক্ষ্মীপুর জেলায় মোট ২ লাখ ৯৯ হাজার ৯’শ ৯৩ জন শিশু এই কর্মসূচির আওতায় আনার লক্ষ্যমাত্রার নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে (৬-১১ মাস) বয়সী ৩৫ হাজার ২’শ ৮ জনকে নীল রঙের এবং ১২-৫৯ বয়সী ২ লাখ ৬৪ হাজার ৭’শ ৮৫ বয়সী শিশু লাল রঙের ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। ৫টি উপজেলার ৫৮টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় ওই দিন এই কার্যক্রম চলবে। ১ হাজার ৪’শ ৮০টি কেন্দ্রে ২’শ ২২ জন স্বাস্থ্য সহকারী, ১’শ ৯৪ জন সুপারভাইজার, ২ হাজার ৯’শ ৬০ জন সেচ্ছাসেবক এই কর্মসূচিতে থাকবে।

শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মোরশেদ আলম হিরু বলেন, ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল শিশুদের নানান অসুখ থেকে মুক্ত রাখে। রাতকানা ও বিটটস স্পর্ট, দীর্ঘ মেয়াদি ডায়রিয়া, হাম ও মারাত্মক অপুষ্টির হাত থেকে রক্ষা করে। ভিটামিন ‘এ’ দেহের স্বাভাবিক বৃদ্ধিতে সহায়তা করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং শিশু মৃত্যুর ঝুঁকি কমায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *