লক্ষ্মীপুরে মার্কেন্টাইল ইসলামী লাইফের জাতীয়  বীমা দিবস পালিত

ব্যাংক বীমা

কাজী নাঈম, নিজস্ব প্রতিবেদক:

আজ ১লা মার্চ জাতীয় বীমা দিবস। এই বীমা দিবস প্রবর্তনের পর, এবার পঞ্চমবারের মতো পালিত হচ্ছে জাতীয় বীমা দিবস। 

বীমা দিবসকে কেন্দ্র করে, লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে সকল কোম্পানি একই সাথে দিবসটি পালন করেছে, তাদের মধ্যে মার্কেন্টাইল ইসলামী লাইফ, ফারইষ্ট ইসলামী লাইফ, পপুলার ইসলামী, প্রগ্রেসিভ লাইফ, সোনালী লাইফ,  বেঙ্গল ইসলামী লাইফ, প্রগতি লাইফ, ডেল্টা লাইফ, আলফা ইসলামী লাইফ,সন্ধানী লাইফ,গার্ডিয়ান লাইফ আকিজ তাকাফুল লাইফসহ অনেক ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি।

মার্কেন্টাইল ইসলামী লাইফের লক্ষ্মীপুর সার্ভিস সেন্টার ইনচার্জ কোম্পানির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট, জনাব কাজী নাঈম উদ্দিন বলেন, এই বীমা দিবসে এটায় প্রমান করে, বাংলাদেশে বীমার মাধ্যম দেশ ও জনগণ বীমার সুবিধা সহজে ভোগ করতে পারবে, বর্তমান সময়ে বীমা অনলাইন ভিত্তিক হওয়ার কারনে গ্রাহকের আমানত দ্রতুত গতিতে গ্রহন করতে পারবে, গ্রাহক তাদের প্রিমিয়ামের টাকা নগদ, বিকাশ, রকেট, উপায়ের মধ্যে, ব্যাংকের মধ্যে জমা দেওয়ার সুযোগ থাকায় প্রতারিত হবেনা, বিশেষ করে মেয়াদ পূর্ন টাকা দ্রুত সময়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করা যাবে, 

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি ইনস্যুরেন্স কোম্পানিতে যোগদানের স্মৃতি স্মরণীয় রাখতে ২০২০ সালে দিবসটি প্রবর্তন করেন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। 

প্রবর্তনের পর থেকে প্রতি বছর পহেলা মার্চ দিবসটি পালিত হয়ে আসছে। জাতীয় বীমা দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য বিষয়— ‘করবো বীমা গড়বো দেশ, স্মার্ট হবে বাংলাদেশ’ এই স্লোগান কে সামনে রেখে।

একটি ব্যাংক একই সঙ্গে সর্বোচ্চ ৩টি জীবন বীমা ও ৩টি সাধারণ বীমার পণ্যসেবা বিক্রি করতে পারবে। যেসব ব্যাংকের প্রকৃত খেলাপি ঋণ ৫ শতাংশের কম, তারাই শুধু এই সেবায় যুক্ত হতে পারবে।

বীমাপণ্য ব্যাংকগুলোকে বিক্রির পর গ্রাহকের বীমা দাবি পাওয়ার ক্ষেত্রে ও সহযোগিতা করতে হবে।

জানা যায়, কয়েকটি দেশি—বিদেশি ব্যাংক ইতোমধ্যে নীতিমালা মেনে ব্যাংকাস্যুরেন্স সেবা দিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে অনুমোদন নিয়েছে।

এদিকে বীমাখাতে ‘ব্যাংকাস্যুরেন্স’ নামক নতুন এই সেবা চালু হওয়ায় এই খাতে সৃষ্ট আস্থার সংকট দূর হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। তাদের মতে, ব্যাংকিং খাত সরাসরি বীমাসেবায় যুক্ত হওয়ায় বীমা খাতের প্রচারণার নতুন ক্ষেত্র তৈরি হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *